1. admin@amarsongbad24.com : admin :
  2. zihadononto15@gmail.com : Zihad Hokkani : Zihad Hokkani
গাইবান্ধায় জাতীয় ভিটামিন “এ” প্লাস ক্যাম্পেইন অনুষ্ঠিত - AMAR SONGBAD 24
বৃহস্পতিবার, ১৩ জুন ২০২৪, ০২:১২ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
এক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মাহমুদ মিয়া অপর বিদ্যালয়ে সভাপতি, নানা অনিয়মের অভিযোগ! গাইবান্ধায় প্রকৌশলী কল্যাণ সংস্থার উদ্যোগে বিশুদ্ধ ঠান্ডা খাবার স্যালাইন পানি বিতরণ জুয়া বসানোর অভিযোগে সাদুল্লাপুরে ইউপি মেম্বার আল-আমিনের বিরুদ্ধে মামলা! (ভিডিও ভাইরাল) সুন্দরগঞ্জের চরাঞ্চলে কর্মোক্ষম মানুষের মধ্যে খাদ্য সামগ্রী  বিতরণ ভিজিএফের চাল ওজনে কম দেয়ার অভিযোগ সাংবাদিককে লাঞ্চিত করলেন মেয়র সুন্দরগঞ্জ উপজেলা প্রেসক্লাবে আলোচনা দোয়া ও ইফতার  সুন্দরগঞ্জে বারো জুয়াড়িসহ গ্রেফতার-১৩ সুন্দরগঞ্জে জমি নিয়ে সংঘর্ষে নিহত এক, গ্রেফতার দুই সুন্দরগঞ্জে স্কুল মাঠে ঝড়ে ভেঙে পড়া গাছ খেলাধুলা বন্ধ সুন্দরগঞ্জে রাস্তায় বাঁশের বেড়া ২৩ দিন ধরে অবরুদ্ধ ৪ পরিবার

গাইবান্ধায় জাতীয় ভিটামিন “এ” প্লাস ক্যাম্পেইন অনুষ্ঠিত

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ
  • প্রকাশের সময়: রবিবার, ১৯ ফেব্রুয়ারি, ২০২৩
  • ৭৫

গাইবান্ধা জাতীয় ভিটামিন ‘এ’ প্লাস ক্যাম্পেইনে ৩ লাখ ৪২ হাজার ৪০৫ জন শিশুকে ভিটামিন ‘এ’ ক্যাপসুল খাওয়ানো হবে। এর মধ্যে ৬-১১ মাস বয়সী ৩৪ হাজার ৬২৯ জন শিশুকে একটি করে নীল রঙের ভিটামিন ‘এ’ ক্যাপসুল এবং ১২-৫৯ মাস বয়সী ৩ লাখ ৭ হাজার ৭৭৬ জন শিশুকে একটি করে লাল রঙের ভিটামিন ‘এ’ ক্যাপসুল খাওয়ানো হবে।

আগামীকাল সোমবার (২০ ফেব্রুয়ারি) সকাল ৮টা থেকে বিকাল ৪টা পর্যন্ত গাইবান্ধা জেলা মোট ৩ লাখ ৪২ হাজার ৪০৫ জন শিশুকে ভিটামিন ‘এ’ ক্যাপসুল খাওয়ানো হবে। জাতীয় ভিটামিন ‘এ’ প্লাস ক্যাম্পেইন পালন উপলক্ষ্যে রোববার (১৯ ফেব্রুয়ারি) বিকেলে গাইবান্ধা সিভিল সার্জন কার্যালয় এক ওরিয়েন্টেশন কর্মশালায় গণমাধ্যম কর্মীদের এ তথ্য জানানো হয়। কর্মশালায় বক্তব্য দেন বক্ষব্যাধি ক্লিনিকের কনসালটেন্ট ডা. মো.নাজমুল হুদা, মেডিকেল অফিসার ডা. কেএম আফরোজ জাহান, জুনিয়ার স্বাস্থ্য শিক্ষা অফিসার আমিরুল ইসলাম ও সাংবাদিক গোবিন্দ লাল দাস প্রমুখ।

বক্তারা বলেন, গাইবান্ধা জেলা মোট ৩ লাখ ৪২ হাজার ৪০৫ জন শিশুকে ভিটামিন ‘এ’ ক্যাপসুল খাওয়ানো হবে। একই সঙ্গে আন্তঃব্যক্তি যোগাযোগ ও গণমাধ্যমের সহায়তায় জন্মের পরপরই (১ ঘণ্টার মধ্যে) শিশুকে শালদুধ খাওয়ানোসহ প্রথম ৬ মাস শিশুকে শুধু মায়ের বুকের দুধ খাওয়ানো এবং শিশুর বয়স ৬ মাস পূর্ণ হলে মায়ের দুধের পাশাপাশি ঘরে তৈরি পরিমাণ মতো সুষম খাবার খাওয়ানো বিষয়ে প্রচারাভিযান চালানো হবে। এ কার্যক্রম সফল করতে ইতিমধ্যে জেলা-উপজেলা ও ইউনিয়ন স্বেচ্ছাসেবীদেরকে প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়েছে।

বক্তারা আরও বলেন, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ১৯৭৪ সালে যখন এই কার্যক্রম গ্রহণ করেন। তখন ৬-৫৯ মাস বয়সী শিশুদের মাঝে রাতকানা রোগের হার ছিল ৩ দশমিক ৭৬ শতাংশ। এ বারের প্রত্যাশিত লক্ষমাত্রা ৯০ শতাংশের বেশি।

জাতীয় ভিটামিন ‘এ’ প্লাস

More News Of This Category
All Rights Reserved © 2023 Amar Songbad
Developed By :: Sky Host BD